সাকিব খেলতে পারবেন না মিনহাজুল তা জানতেন!

0 53
  •  শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচে নেই সাকিব।
  •  মাঠে ফিরতে পারেন সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে।

মিরপুর টেস্টে আড়াই দিনে হার নিশ্চিত হওয়ার পর প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচের স্কোয়াড ঘোষণা করে বাংলাদেশ টিম ম্যানেজমেন্ট। সাকিব আল হাসানকে সেই স্কোয়াডে দেখা দারুণ স্বস্তির। টেস্ট সিরিজে সাকিবের অভাব তো হাড়ে হাড়ে টের পাওয়া গেল। টি-টোয়েন্টি সিরিজে সাকিব ফেরায় অনেকেই তাই আশান্বিত হয়েছিলেন। কিন্তু সেই আশার গুড়ে কিছুটা বালি। টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচটা সাকিব খেলতে পারবেন না!

ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালে আঙুলে চোট পেয়েছিলেন এ অলরাউন্ডার। অস্ত্রোপচার করাতে হয়। সেরে উঠতে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজটা খেলেননি। টি-টোয়েন্টি সিরিজে প্রথম ম্যাচের স্কোয়াডে তাঁকে ফেরানো হয়। কিন্তু বিসিবির প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু আজ জানালেন, বৃহস্পতিবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) প্রথম ম্যাচে সাকিব খেলতে পারবেন না এবং সেটা নাকি তিনি আগেই জানতেন!

সাকিবের আঙুলের সেলাই কাটা হয়েছে গতকাল। ডাক্তার আনুষ্ঠানিকভাবে এখনো কিছু জানাননি। তবে নান্নুর ভাষ্য, ‘শুনেছি এত স্বল্প সময়ে পুনর্বাসনপ্রক্রিয়া সে (সাকিব) শেষও করতে পারবে না। অন্তত সাত দিন লাগবে। আশা করি, টি-টোয়েন্টি সিরিজের শেষ ম্যাচটা খেলতে পারবে। যেহেতু সে বাংলাদেশ অধিনায়ক এই ফরম্যাটে; বাকিটা তার সেরে ওঠার ওপর নির্ভর করছে।’

প্রথম ম্যাচে সাকিবের না খেলার ব্যাপারে প্রধান নির্বাচকের উক্তি, ‘১৫ তারিখে সাকিব যে খেলতে পারবে না, সেটা তো জানতামই। প্রথম টি-টোয়েন্টিতে তাকে পাচ্ছি না। তবে পরেরটিতে প্ল্যান আছে তাকে নিয়ে।’ প্রশ্ন হলো, নান্নু যদি জানতেনই প্রথম ম্যাচে সাকিব খেলতে পারবেন না, তাহলে স্কোয়াডে রাখলেন কেন? তাঁকে পরেও তো ফেরানো যেত?

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.