তারাও টপলেস হয়েছেন!

34

বিনোদন ডেস্ক: বলিউড অভিনেত্রীরা বরাবরই সাহসী। শরীর এবং গ্ল্যামারের বিষয়ে এই ইন্ডাস্ট্রির প্রায় সবাই সচেতন। ক্যারিয়ারে অন্তত একবার হলেও সাহসী দৃশ্যে কিংবা ফটোশুটে অংশ নিয়েছেন বলি পাড়ার নায়িকারা। কেউ কেউ তো একেবারে টপলেস হয়ে চমকে দিয়েছেন দর্শকদের।

টপলেস ইস্যুতে সানি লিওনি, পাওলি দাম, পুনম পাণ্ডে, এশা গুপ্তা ও দিশা পাটানি আলোচিত ও সমালোচিত হয়েছেন। তারা বিভিন্ন সময়ে টপলেস হয়েছেন।

তবে আজকের এই আয়োজনটি অন্য কয়েকজন অভিনেত্রীকে নিয়ে, যারা টপলেস হয়েছেন; কিন্তু দর্শকদের অনেকেই বিষয়টা জানেন না। চলুন জেনে নেওয়া যাক তাদের টপলেস হওয়ার গল্প…

 

জিনাত আমান: বলিউডের সত্তর ও আশির দশকের নায়িকা জিনাত আমান। জনপ্রিয় এই অভিনেত্রী সেই যুগেই টপলেস হয়েছিলেন। এটা শুনে বিস্মিত হতে পারেন অনেকেই। ১৯৭৮ সালের ‘সত্যম শিভাম সুন্দরম’ সিনেমায় জিনাতকে পোশাক ছাড়া দেখা যায়।

 

কারিনা কাপুর: নামটি শুনে অনেকেই হয়ত অবাক হয়েছেন। কিন্তু ঘটনা সত্য। কারিনাও টপলেস হয়েছেন। ২০০৯ সালে ‘কুরবান’ সিনেমার পোস্টারে তাকে টপলেস রূপে দেখা যায়। সেখানে তার সহশিল্পী ছিলেন সাইফ আলি খান। পোস্টারটি প্রকাশ্যে আসার পর ব্যাপক সমালোচিত হয়। এমনকি ভারতীয় শিবসেনার কর্মীরা বিভিন্ন জায়গায় পোস্টারটি ছিঁড়ে ফেলেছিল। উল্লেখ্য, পরবর্তীতে ২০১২ সালে সাইফ আলি খানকে বিয়ে করেন কারিনা।

 

কিয়ারা আদভানি: কিয়ারা আদভানি বলিউডের এই সময়ের অভিনেত্রী। প্রথম আলোচনায় আসেন ‘এমএস ধোনি: দ্য আনটোল্ড স্টোরি’ সিনেমার মাধ্যমে। তবে ‘কবির সিং’ সিনেমা দিয়ে জনপ্রিয়তার প্রথম সারিতে চলে আসেন কিয়ারা। তিনিও হয়েছেন টপলেস। গেলো বছর ডাব্বু রত্নানির ক্যামেরায় টপলেস হয়ে ধরা দেন কিয়ারা। কেবল বুকের সামনে একটি পাতা ধরে রেখেছেন তিনি। তার ছবিটি ঝড় তুলেছিলো নেট দুনিয়ায়।

ভূমি পেডনেকার: ‘দম লাগাকে হাইসা’ সিনেমায় অভিনয় করেই বলিউডে জায়গা করে নেন তিনি। স্থূলকায় হওয়ার কারণে কিছু সমালোচনার শিকার হয়েছেন ভূমি। তবে নিজেকে ফিট করে তিনি এখন গ্ল্যামারাস অভিনেত্রী। অবাক করার মতো বিষয় হলো, ভূমিও টপলেস হয়েছেন। ডাব্বু রত্নানির ক্যালেন্ডারের জন্য বাথটাবে শুয়ে খালি শরীরে ক্যামেরাবন্দী হন তিনি।

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.


Notice: Undefined index: name in /var/www/wp-content/plugins/propellerads-official/includes/class-propeller-ads-anti-adblock.php on line 169