সৌদি আরবে বর্ণাঢ্য আয়োজনে বর্ষবরণ উৎসব

0 49

‘মুছে যাক গ্লানি, ঘুচে যাক জরা, অগ্নিস্নানে শুচি হোক ধরা’ নতুন বছরের শুরুর লগ্নে ধুয়ে মুছে পবিত্র হোক ধরণী’-কবিগুরুর এমনই আকুতি বাঙালি সত্তাকে প্রতি বছরেই নিয়ে যায় ঐতিহ্যের দিকে। পহেলা বৈশাখ উদযাপন বাঙালির ঐতিহ্য ও সংস্কৃতির প্রবাহকে বাঁচিয়ে রাখে।

১৪২৫ বাংলা বছরের প্রথম দিন পহেলা বৈশাখ উদযাপিত হয়েছে মধ্যপ্রচ্যের সৌদি আরবে। ‘আসুন বাংলা সংস্কৃতিকে লালন করি’- এই স্লোগানকে সামনে রেখে বাংলাদেশ কনস্যুলেট জেনারেল জেদ্দার আয়োজনে অনুষ্ঠিত বৈশাখের প্রথম প্রহরে অনুষ্ঠিত হয় মঙ্গল শোভাযাত্রা। অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন কনসাল জেনারেল এফ এম বোরহান উদ্দিন। দিনটিকে ঘিরে সকাল থেকে মধ্যরাত পর্যন্ত ছিল বাংলা বর্ষবরণের নানা আয়োজন।

এছাড়াও বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক সংগঠন ছাড়াও ব্যক্তি পর্যায়ে নেয়া হয় নানা উদ্যোগ। এরমধ্যে ছিল মঙ্গল শোভাযাত্রা, পান্তা ইলিশ, বাহারি পিঠা-পায়েশ আর সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। বর্ষবরণের অনুষ্ঠানে আগত সবাই অশুভ শক্তির বিনাশ এবং অতীতের জরা জীর্ণতা পেছনে ফেলে পৃথিবীর সকল মানুষের মঙ্গল কামনা করেন। নতুন বছরে জঙ্গিবাদ-সন্ত্রাসবাদ মুক্ত একটি অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ প্রত্যাশা সকলের।

এদিকে আগামী ২০ এপ্রিল শুক্রবার রিয়াদ বাংলাদেশ দূতাবাসের সহযোগিতায় দিনব্যাপী বৈশাখী মেলার আয়োজন করতে যাচ্ছে ইভেন্ট অর্গানাইজার প্রতিষ্ঠান শ্যাডো। মেলার মিডিয়া পার্টনার বাংলাদেশ প্রতিদিন ও নিউজটুয়েন্টিফোর।

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.