হাড় ভেঙে গেলে যে খাবারগুলো খাবেন

0 48

স্বাস্থ্যসেবা ডেস্ক ॥
দুর্ঘটনায় অনেকেরই হাড় ভেঙে যায়। এর থেকে যন্ত্রণাদায়ক আর কষ্টকর ব্যাপার হতে পারে না। তবে হাড় ভেঙে গেলে বেশ কিছু খাবার আছে যেগুলো খাদ্যতালিকায় রাখলে হাড় তাড়াতাড়ি জোড়া লাগবে, হাড় আস্তে আস্তে হয়ে উঠবে শক্তিশালী। যুক্তরাষ্ট্রের আটলান্টার পুষ্টিবিদ মারিসা মুরের পরামর্শ মোতাবেক জেনে নেয়া যাক সে খাবারগুলো সম্পর্কে। হাড় ভেঙে গেলে যে খাবারগুলো খাবেন এ নিয়ে  আমাদের দুই পর্বের লেখার প্রথম পর্ব আজ।

দুগ্ধজাত খাবার

দুগ্ধজাত বিভিন্ন খাবার যেমন ফর্টিফাইড দুধ, পনির এবং দইয়ে আছে প্রচুর পরিমাণে ক্যালসিয়াম এবং ভিটামিন ডি, যেগুলো হাড় গঠনে প্রয়োজনীয় পুষ্টি জোগায়।

সয়া দুধ

ল্যাকটোজ সহ্য করতে পারেন না বলে অনেকেই দুধ খেতে পারেন না, তাদের জন্য বিকল্প হিসেবে আছে ফর্টিফাইড সয়া দুধ।

টুনা মাছ

ক্যালসিয়াম আপনার শরীরে সবচেয়ে ভালো কাজ করে যখন এর সাথে থাকে ভিটামিন ডি। চর্বিযুক্ত মাছ যেমন টুনা মাছে একসঙ্গে আছে ক্যালসিয়াম ও ভিটামিন ডি। যেটা হাড়ের স্বাস্থ্য গঠনে খুবই দারুণ ভূমিকা রাখে।

মিষ্টি কুমড়ার বিচি

মিষ্টি কুমড়ার বিচিতে থাকা ম্যাগনেশিয়াম শরীরের অভ্যন্তরে ক্যালসিয়াম শুষে নিতে সাহায্য করে। ম্যাগনেশিয়াম হাড়কে শক্তিশালী ও দৃঢ় করতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে।

ক্যাপসিকাম বা বেল পেপার

ক্যাপসিকাম বিশেষত লাল রঙের ক্যাপসিকামে থাকে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি। ভিটামিন সি শরীরের অভ্যন্তরে কোলাজেন নামক একটি প্রোটিন তৈরিতে সহায়তা করে, এই প্রোটিনটি হাড় পুনর্গঠনে সহায়তা করে। আধা কাপ ক্যাপসিকামে একটি পুরো কমলায় যতটুকু ভিটামিন সি থাকে তার থেকে বেশি ভিটামিন থাকে।

বাধা কপি

বাধা কপিতে ভরপুর থাকে ভিটামিন কে। হাড়ের গঠনে এই ভিটামিনটি ক্যালসিয়ামকে সাহায্য করে থাকে।

তথ্যসূত্র: রিডার্স ডাইজেস্ট

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.