বাংলাদেশের বিদায়!

সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ

0 18

নেপালের বিপক্ষে ড্র হলেই গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে সেমিফাইনালে পৌঁছে যেত বাংলাদেশ। কিন্তু দুর্ভাগ্য সঙ্গী হলে যা হয় আরকি! ২-০ গোলে হেরেই বিদায় নিতে হলো বাংলাদেশকে।

৩৩ মিনিটে গোলরক্ষক শহীদুল আলমের ভুলে নেপালের বিপক্ষে প্রথমার্ধে ১-০ গোলে পিছিয়ে মাঠ ছাড়ে বাংলাদেশ। প্রায় ৪০ গজ দূরে থেকে করা বিমলের শট রুখে দিতে ব্যর্থ হন শহীদুল। পরে পিছিয়ে থেকেই বিরতিতে যায় স্বাগতিকরা।

এক গোলে পিছিয়ে থেকে শেষ মুহুর্ত পর্যন্ত লড়ছিল বাংলাদেশ। কিন্তু নির্ধারিত সময় শেষ হওয়ার এক মিনিট আগে বাংলাদেশের কফিনে শেষ পেরেক ঠুকে দেন নাওয়াং শ্রেষ্ঠ। ৮৯ মিনিটে গোল খেয়ে ড্র করার শেষ আশাটুকুও হারিয়ে ফেলে স্বাগতিক বাংলাদেশ।

দুই জয়ে ৬ পয়েন্ট ছিল বাংলাদেশের। এক ম্যাচ বেশি খেলে পাকিস্তানের পয়েন্টও সমান ছয়। এক জয়ে তিন পয়েন্ট নেপালের। বাংলাদেশ আজ ড্র করলেই পৌঁছে যেতে পারত সেমিফাইনালে।

বাংলাদেশ এর আগে নিজেদের প্রথম ম্যাচে ভুটানকে ২-০ গোলে হারিয়ে শুভ সূচনা করে। পরে পাকিস্তানকে ১-০ গোলে হারিয়ে ২০১৩ সালের পর প্রথমবার সাফে টানা দুটি ম্যাচ জিতে নেয়।

অন্যদিকে পাকিস্তান নেপালের বিপক্ষে ২-১ গোলে জয় দিয়ে শুরু করলেও বাংলাদেশের বিপক্ষে দ্বিতীয় ম্যাচে ১-০ গোলে হেরে যায়। তবে তৃতীয় ম্যাচে ভুটানকে ৩-০ গোলে হারিয়ে সেমির আশা টিকিয়ে রাখে।

নেপাল আবার নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে ভুটানকে ৪-০ গোলে উড়িয়ে দেয়।

বাংলাদেশ একাদশ

ওয়ালী ফয়সাল, তপু বর্মন, টুটুল হোসেন বাদশা, জামাল ভূইয়া, মামুনুল ইসলাম, স্বাদ উদ্দিন, বিশ্বনাথ ঘোষ, বিপলু আহমেদ, মাহবুবুর রহমান, মাশুক মিয়া জনি, শহিদুল আলম (গোলরক্ষক)।

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.