কেন H2O মানে রেস্টুরেন্ট বলেছিলেন, মুখ খুললেন অনন্যা

0 76

কেন H2O মানে – শেষ হয়ে গেল মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ ২০১৮ এর গ্র্যান্ড ফিনালের। এবারের আসরে জান্নাতুল ফেরদৌস ঐশী মুকুট জিতলেও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভিন্ন কারণে ভাইরাল হয়েছেন আরেক প্রতিযোগী সুমনা নাথ অনন্যা৷

নানা ধরনের উপস্থাপনার এক পর্যায়ে বিচারক প্যানেলের একজন মডেল, অভিনেতা ও কোরিওগ্রাফার খালেদ হোসেন সুজন অনন্যাকে জিজ্ঞেস করেন, ‘H2O মানে কি?’ প্রথমে জানেন না বললেও পরে অনন্যা বলেন, ‘এ নামে একটি রেস্টুরেন্ট আছে ধানমন্ডিতে।’

বিচারক তো বটেই, দর্শক সারিতে উপস্থিত সকলের মধ্যেও এ নিয়ে সৃষ্টি হয় হাস্যরসের৷ কখনোই বিজ্ঞান বিষয়ে পড়াশোনা না করলেও H2O মানে যে পানি, সেটা না জানা অপরাধ না বলেও মন্তব্য অনেকের৷

এ বিষয়ে অনন্যা বলেন, “আমাকে যখন বিচারক প্রশ্ন করলেন ‘H2O মানে কি’ তখন আমি বেশ নার্ভাস হয়ে গিয়েছিলাম। এমন একটা মঞ্চে দাড়িয়ে নার্ভাসনেস ফিল করাটাই স্বাভাবিক। সুজন স্যার যদি বলতেন ‘H2O কিসের সংকেত’ তবে তা আমি নির্দ্বিধায় বলে দিতাম এটা পানির সংকেত। কারণ সেটা আমিও পারতাম। প্রশ্নটা শুনে আমার বারবারই মনে হচ্ছিল বিচারক আমাকে হয়তো একটু অন্যভাবে ফান করে প্রশ্নটি করেছেন।”

“তাই আমি জবাবটা খুঁজে পাচ্ছিলাম না কীভাবে দেব। পরে সুজন স্যার যখন বললেন, H2O মানে পানি। তখন আমার কাছে মনে হয়েছিল H2O নামে তো একটা রেস্টুরেন্টও আছে। সেটা আমি উনার সঙ্গে শেয়ার করি। ব্যস! কিন্তু বিষয়টাকে সবাই এভাবে নেবে তা কখনো ভাবিনি। আমাদের দেশে নেগেটিভ বিষয়গুলো খুব দ্রুত ভাইরাল হয়ে যায়।”

অনন্যা আরও বলেন, লোকজন আমার তখনকার মানসিক অবস্থা বোঝার চেষ্টা করেননি। তারা একটা মেয়েকে অপদস্ত করার সুযোগ পেয়েছেন, সেটাই করে যাচ্ছেন।

কেউ কেউ আবার প্রতিযোগীর পাশাপাশি বিচারকের মানদণ্ড নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন৷ তাঁরা বলছেন, অন্য এক বিচারক মডেল, অভিনেত্রী ও কোরিওগ্রাফার ইমি প্রতিযোগীদের ‘গুড নাইট’ বলে সম্ভাষণ জানান৷

‘গুড নাইট’ যে শুধু বিদায়ের সময় বলা যায়, সে বিষয়টি যে প্রতিযোগিতার বিচারক জানেন না, সেখানে প্রতিযোগীর মান নিয়ে প্রশ্ন তোলা কতটা যৌক্তিক, সে নিয়েও বিস্ময় প্রকাশ করেছেন অনেকে৷

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.