রাকেশ রোশন কখনও অমিতাভের সঙ্গে কাজ করতে চান না কেন?

0 39

কিছুদিন আগে বলিউডের মন খারাপ ছিল অভিনেত্রী সোনালী বেন্দ্রে ও অভিনেতা ইরফান খানের ক্যানসারে আক্রান্ত হওয়ার খবর জেনে। এবার সেই তালিকায় রাকেশ রোশনও। বাবা রাকেশ রোশনের ক্যানসারে আক্রান্ত হওয়ার কথা সম্প্রতি জানিয়েছেন ছেলে হৃতিক। গলায় ক্যানসার হয়েছে অভিনেতার, জানিয়েছেন তাঁর ছেলে। 

প্রচুর জীবনীশক্তির জন্য সমাদৃত রাকেশ একাধিক বড় বাজেটের ছবি প্রযোজনা করেছেন। ‘কহো না পেয়ার হ্যায়’ হয়েছিল সুপারহিট। আপাতত ‘কৃষ ৪’-এর কাজ নিয়ে ব্যস্ত ছিলেন তিনি। পরিচালক হিসাবে রাকেশের প্রথম ছবি ‘খুদগর্জ’। ছবিটি বক্স অফিসে ভালই সাফল্য পেয়েছিল। ছবিতে ছিলেন জিতেন্দ্র। ১৯৮২ সালে ‘কামচোর’ ছবির ‘তুঝকে প্রীত ভালাই সজনা’ গানের শুটিংয়ে উটিতে যাওয়ার কথা ছিল রাকেশ ও জয়প্রদার। উটি যাওয়ার টাকা না থাকায় গাড়ি বন্ধক রাখেন রাকেশ। 

এরপর পরিচালক রাকেশের ‘কিষণ কানহাইয়া’, ‘কর্ণ অর্জুন’ রীতিমতো সুপারহিট হয়। রাকেশ রোশনের ছবির নাম কিন্তু সব ‘কে’ দিয়েই। ১৯৮২ সালের ‘কামচোর’ সুপারহিট। কিন্তু ১৯৮৪ সালের ‘জাগ উঠা ইনসান’ হিট হয়নি। ওমপ্রকাশের পরিচালনায় ‘ভগবান দাদা’ও হিট হয়নি। ছবিতে রজনীকান্ত ছিলেন। এটি শিশু অভিনেতা হিসাবে হৃতিকের প্রথম ছবি।

এরপর ‘কিং আঙ্কল’, ‘খুন ভরি মাঙ্গ’, ‘কহো না পেয়ার হ্যায়’, ‘ক্রেজি ৪’, ‘কাইটস’, কর্ণ-অর্জুন, সব ছবির নামই ‘কে’ দিয়ে শুরু। প্রতিটি ছবিই বক্স অফিসে হিট।

এই হিটের বাজারেও ‘কিং আঙ্কল’ নিয়ে সমস্যা হয় রাকেশ আর অমিতাভ বাচ্চনের।‘কিং আঙ্কল’ ছবিতে রাকেশ রোশনের পরিচালনায় কাজ করার কথা ছিল বিগ বির। অমিতাভ বচ্চনকে ভেবেই লেখা হয়েছিল চিত্রনাট্য। কিন্তু প্রথমে কথা দিলেও অমিতাভ বচ্চন নাকি পরে কাজ করতে রাজি হননি।

শোনা যায় তিন থেকে চার বছরের একটা ‘ব্রেক’ চেয়েছিলেন অমিতাভ। তারপর থেকে রাকেশ আর কখনওই অমিতাভ বচ্চনের সঙ্গে কাজ করতে চাননি। ঘনিষ্ঠ মহলে তিনি আরো জানান যে, আর কোনও দিনই অমিতাভের সঙ্গে কাজ করবেন না। ‘কিং আঙ্কল’-এ কাজ করেন জ্যাকি শ্রফ। ছবিটি হিট হয়। ছবিতে ছিলেন শাহরুখ খানও।

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.