জমানো গয়না বিক্রি করে সংসার চালাচ্ছেন অভিনেত্রী

0 21

শেষ সম্বল ছিলো কিছু গয়না। সেই গয়না বিক্রি করেই এখন সংসার চালাচ্ছেন তিনি। হাতে কোনো টাকা নেই। ঘরে খাবারের ব্যবস্থা করার জন্য মানুষের কাছে ধার-দেনাও করেছেন। এমনই অবস্থা হয়েছে ছোট পর্দার জনপ্রিয় অভিনেত্রী নূপুর অলঙ্কারের।

সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে এই অভিনেত্রী জানান, তার অর্থনৈতিক অবস্থা ভীষণ খারাপ যাচ্ছে। ‘আগলে জনম মোহে বিটিয়া হি কিজো’ , ‘ঘর কি লক্ষ্মী বিটিয়া’ র মত শো এর এই জনপ্রিয় অভিনেত্রীর এই হাল হলো কী করে? এক ব্যাংকে টাকা জমা রেখে ফেঁসে গেছেন তিনি।

নূপুর অলঙ্কার বলেন, ‘পাঞ্জাব মহারাষ্ট্র সমবায় ব্যাংকের বিপর্যয়ের কারণে এই অনিশ্চয়তার মধ্যে জীবন কাটছে আমার। আমার সব টাকা এই ব্যাংকে জমা রেখেছি। ঘরে কোনও টাকা সঞ্চিত নেই। আমার গয়না বিক্রি ছাড়া আর কোনও রাস্তাই আমার কাছে খোলা ছিলো না।

এক অভিনেতার কাছ থেকে ৩০০০ টাকা ধারও নিয়ে ছিলাম। কবে যে ব্যাংকের সমস্যার সমাধান হবে। টাকাগুলো আবার না হারিয়ে যায়!’

উল্লেখ্য, সম্প্রতি পাঞ্জাব মহারাষ্ট্র সমবায় ব্যাংকে ২৫ হাজার কোটি টাকা দুর্নীতির অভিযোগে সমস্ত লেনদেন বন্ধ রাখা হয়েছে। এরফলে ওই সব ব্যাংকে যাদের টাকা আছে তারা পড়েছেন বিপাকে। এমনই গ্রাহকদের মধ্যে একজন হলেন অভিনেত্রী নুপূর অলঙ্কার। তিনিও ওই ব্যাংকে টাকা রেখে পড়েছেন মহাবিপদে।

সরকারের তরফে জানানো হয়েছে, ওই ব্যাংক থেকে আপাতত ৬ মাস অন্তর ১০ হাজার টাকা করে তোলা যাবে। পরবর্তী সময়ে এই মাত্রা বাড়িয়ে ২৫,০০০ করা হবে।

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.