অলোকনাথকে চড় মারার খেসারত, ক্যারিয়ার ছাড়তে হয় নভনীতকে

0 10

বিনোদন ডেস্ক : ইন্ডাস্ট্রিতে রটে অনেক কিছুই। আর কথাতেই তো বলে, যা রটে তার কিছু ঘটেও বটে। আদর্শ বাবার চরিত্রে অভিনয় করা অভিনেতা অলোকনাথও যে এক সময় নানাভাবে হেনস্থা করেছিলেন এক উদীয়মান বলিউড অভিনেত্রীকে, সে খবর অনেকেরই অজানা। শুধু তাই নয়, তার জন্যই নাকি উজ্জ্বল ক্যারিয়ার মুখ থুবড়ে পড়েছিল সেই অভিনেত্রীর, অভিযোগ এমনটাই।

নভনীত নিশান। এক সময় বলিউডে এই হার্টথ্রব কেরিয়ার শুরু করেছিলেন ‘ওয়ারিশ’ ছবির মধ্য দিয়ে। বাবা ছিলেন আর্মি অফিসার। অভিনয়কে ভালোবেসে নভনীত দিল্লির এনএসডি থেকে নাটক নিয়ে ডিপ্লোমাও পাশ করেন।

সেখান থেকে মুম্বাই এসে কাজের অভাব হয়নি তার। গ্ল্যামারাস লুক, সহজেই নজর কেড়েছিল কাস্টিং ডিরেক্টরদের। মিলছিল মডেলিংয়ের কাজও।

তার বলিউডি ডেবিউ হয় নব্বই এর শুরুতে ‘জান তেরে নাম’ ছবির মধ্য দিয়ে। বিপরীতে রণিত রায়। কিন্তু নভনীত স্বপ্ন দেখছিলেন আকাশ ছোঁয়ার। সেই মতোই চলছিল প্রস্তুতি।

শেখর কাপুর পরিচালিত ‘টাইম মেশিন’ ছবিতে কাজ করার অফার আসে নভনীতের কাছে। বিপরীতে আমির খান। সব প্রায় ঠিক। এই সময়েই কোনও এক অজানা কারণে সেই ছবির শুটিং বন্ধ হয়ে যায়।

সিনেমায় অফার না মিললেও নভনীতের কাছে আসতে থাকে ধারাবাহিকের অফার। জি টিভিতে সম্প্রচারিত ‘তারা’ নামের এক ধারাবাহিকে কাজ করতে শুরু করেন নভনীত।

সেই ধারাবাহিক অচিরেই টিআরপি লিস্টের একদম শুরুতে জায়গা করে নেয়। নভনীতের রোল জায়গা করে নেয় সবার মনে। মিলতে থাকে জনপ্রিয়তাও।

তবে নভনীতের জন্য অপেক্ষা করছিল এক বড় ধরনের সমস্যা। যে সমস্যায় এমন ভাবে জড়িয়ে পড়েছিলেন তিনি, যে বেরনোর উপায় জানা ছিল না।

ওই ধারাবাহিকের অন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করছিলেন অভিনেতা অলোকনাথ। সে সময় তার জনপ্রিয়তা তুঙ্গে। নভনীত অভিযোগ করেন, প্রায় প্রতি দিন সেটে মদ্যপ অবস্থায় এসে হেনস্থা করেন হিন্দি ধারাবাহিকের সংস্করি ‘বাবা’।

প্রথমে কেউ মানতে না চাইলেও পরে হাতেনাতে ধরা পড়েন অলোকনাথ। তাকে চড় মারেন নভনীত । শো থেকে বাদ দেওয়া হয় অলোকনাথকে। এর পরেই শো’র টিআরপি পড়তে শুরু করে। ধারাবাহিকে আবার ফিরিয়ে নিয়ে আসা হয় অলোকনাথকে।

এর প্রতিবাদ করলে উল্টো নভনীতকেই শো থেকে বেরিয়ে যেতে বলা হয়। এদিকে জুনিয়রের কাছে এত বড় অপমান! সহ্য হয়নি অলোকনাথের। তিনি উল্টো মিডিয়ার সামনে নভনীতকেই দোষারোপ করতে শুরু করেন।

বলতে থাকেন, সে ড্রাগ নেয় নিয়মিত। তার মাথার ঠিক নেই। প্রভাবশালী অলোকনাথের বিরুদ্ধে যাওয়ার ক্ষমতা ছিল না বলিউডের। অচিরেই কাজ হারাতে থাকেন নভনীত। কার্যত একঘরে করে দেওয়া হয় তাকে। যদিও এর পরেও বেশ কিছু ছবিতে অভিনয় করেছিলেন তিনি। তবে স্টারডমের স্পটলাইট থেকে বেরিয়ে আসতে হয়েছিল তাকে।

গত বছর অলোকনাথের বিরুদ্ধে #মিটু অভিযোগ উঠলে পুরনো কথা আবার মনে করিয়ে দেন নভনীত। কীভাবে

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.